সাম্প্রতিক গবেষণা পশ্চিমবঙ্গ বোর্ড, 13 থেকে 17 বছর বয়সী 37% ছাত্র-ছাত্রী অঙ্ককে সবথেকে কঠিন সাবজেক্ট বলে মনে করে। এবং এটা সাধারণত সংখ্যা, চিহ্ন এবং অক্ষর দিয়ে তৈরী ফর্মুলাগুলোর পশ্চিমবঙ্গ মাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ড পশ্চিমবঙ্গের প্রাথমিক শিক্ষা। ক্লাস 7-এর অঙ্ক থেকে ক্লাস 10-এর অঙ্কে ছাত্র-ছাত্রীদের এই নতুন ফর্মের সাথে পরিচয় করানো হয়।
অঙ্কের সবথেকে কঠিন অংশগুলোর মধ্যে একটা হল এই সবকটা সূত্র মনে রাখা। অঙ্ক করার সময় আমাদের সবারই এইরকম \পশ্চিমবঙ্গ প্রাথমিক শিক্ষা বোর্ডের অফিসিয়াল ওয়েবসাইট \ একটা সময় গেছে যে আমরা একটা সূত্র মনে না করতে পারার জন্য একটা সহজ অঙ্কের সমাধান করতে গিয়েও পারিনি। এটা ছাত্র-ছাত্রীদের সাধারণ একটা সমস্যা। কিন্তু আপনার কি মনে হয় না যে আপনি যখন ক্লাস 7-এ অঙ্ক করতেন বা ক্লাস 10-এ বোর্ডের অঙ্ক পরীক্ষা দিচ্ছিলেন সেইসময় অঙ্কের সূত্রগুলো মনে রাখার কয়েকটা ট্রিক থাকলে ভালো হত?
এখন আপনি আপনার ছেলে-মেয়েকে অঙ্কের ফর্মুলা মনে রাখার জন্য এই 8টি স্মার্ট ট্রিকস্ শেখাতে পারেন:
কনসেনট্রেট এবং ফোকাস করা অভ্যাস করুন – ফর্মুলাগুলোকে, যেমন অঙ্কের এবং ফিজিক্স-এর, মনে রাখতে হলে কনসেনট্রেশন এবং ফোকাস বাড়াতে হবে। এগুলোকে অ্যাবসর্ব করতে এবং মনে রাখতে মস্তিষ্কের সময় লাগে, তাই আপনার কনসেনট্রেশন লেভেল বাড়ানোর উপরে কাজ করা উচিত। আপনি দাবা বা সুডোকু-এর মত গেম খেলে, পর্যাপ্ত মাত্রায় ঘুমিয়ে, মেডিটেশন এবং ব্যায়াম করে আপনার কনসেনট্রেশন বাড়াতে পারেন।
মনে রাখার জন্য মেমোনিক ডিভাইস ব্যবহার করুন – মেমোনিক ডিভাইস হল এমন একটি টেকনিক যা আপনার মস্তিষ্ককে আপনার স্মৃতি থেকে তথ্য পুনরুদ্ধার করতে সাহায্য করে। আপনি হয় আগে থেকেই যেগুলো উপলব্ধ সেগুলো যেমন PEMDAS (প্যারেন্থেসেস [বন্ধনী], এক্সপোনেন্টস [সূচক], মাল্টিপ্লিকেশন [গুণ], ডিভিশন [ভাগ], অ্যাডিশন [যোগ], এবং সাবস্ট্রাকশন [বিয়োগ]) ব্যবহার করতে পারেন বা আপনি নিজে তৈরী করে নিতে পারেন। আপনি একটা গান, PEMDAS-এর মত একটা আবব্রেভিয়েশন তৈরী করে নিতে পারেন, বা আপনাকে মনে রাখতে সাহায্য করতে পারে এই ধরনের পশ্চিমবঙ্গ উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা পরিষদ। পদ্ধতির শেষ নেই!
প্র্যাক্টিস, প্র্যাক্টিস, প্র্যাক্টিস – এটা হল সবথেকে গুরুত্বপূর্ণ টিপস্, যে ফর্মুলাটা আপনি মনে রাখতে চান সেটা যত বেশি wbbse অফিসিয়াল ওয়েবসাইট, তাহলে দেখবেন সহজেই সেটা আপনার মনে থাকবে। ফর্মুলা ব্যবহার করতে হয় এইরকম প্রবলেমগুলোকে সল্ভ করুন।
প্রত্যেকটা ফর্মুলার মানে বুঝুন – প্রত্যেকটা ফর্মুলার অন্তর্নিহিত মানে রয়েছে এবং যত তাড়াতাড়ি আপনি এর প্রত্যেকটা জিনিসের মানে বুঝতে পারবেন, ফর্মুলাটাকে মনে রাখা আপনার পক্ষে ততটাই সহজ হয়ে যাবে।
ফর্মুলাটাকে বার বার লিখুন – এটা হল হাতের সাহায্যে লিখে প্র্যাক্টিস করা, আপনি যখন ফর্মুলাটাকে বার বার লিখতে থাকেন তখন সেটা সহজেই আপনার মনে থেকে যায়।
নিজেকে সুস্থ রাখুন – আপনার শরীর যত বেশী সুস্থ থাকবে আপনার মনও তত বেশী সুস্থ থাকবে। পর্যাপ্ত পরিমাণে ঘুমান, পুষ্টিকর খাবার খান এবং দিনে কিছুটা সময় ব্যায়াম করুন।
আপনার নজরে পড়ে এইরকম জায়গায় ফর্মুলাগুলোকে লিখে রাখুন – ফর্মুলাগুলোকে একটা কাগজে লিখুন এবং যেতে-আসতে চোখে পড়ে এমন একটা জায়গায় লাগিয়ে রাখুন। আপনার অবচেতনে সেগুলো আপনার মনে থেকে যাবে।
সহজে মনোযোগ হারাবেন না – আপনি যখন পড়াশুনা করবেন বা অঙ্ক প্র্যাক্টিস করবেন, তখন আপনার মনঃসংযোগে ব্যাঘাত ঘটাতে পারে এইরকম জিনিসগুলোর থেকে দূরে থাকুন। যে কাজটা করছেন সেটা সম্পূর্ণ মনোযোগ সহকারে করুন।
এই ট্রিকস্ গুলোকে আপনি যত বেশি আপনার পড়ার রুটিনের মধ্যে অন্তর্ভুক্ত করবেন, তত ভালোভাবে আপনি মনে রাখতে পারবেন। এবং যে কোনো পরীক্ষাতেই আপনি সফল হতে পারবেন, তা আপনার ক্লাস 7-এর অঙ্ক পরীক্ষাই হোক বা ক্লাস 10-এ বোর্ডের অঙ্ক পরীক্ষা!

MUST VISIT ALSO :- https://www.geneoesekha.in/